করোনার কারনে তৃতীয়বারের মতো পিছিয়ে গেছে ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রীর বিয়ে

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | প্রকাশিত : ২৬ জুন ২০২০ , ৫:০৪ অপরাহ্ণ

নিজের ভালোবাসার মানুষটিকে বিয়ে করার পরিকল্পনা করেছিলেন কিন্তু করোনা ভাইরাসের কারনে একবার নয়, দুইবার নয়, তৃতীয়বারের মতো পিছিয়ে গেছে ডেনমার্কের প্রধানমন্ত্রী মেট ফ্রেডেরিকসেনের বিয়ে।

বৃহস্পতিবার মেট নিজেই জানিয়েছেন, দেশের স্বার্থে ইউরোপিয়ান কাউন্সিলের করোনা বিষয়ক জরুরি বৈঠকে যোগ দিতে তৃতীয়বারের মতো নিজের বিয়ে পিছিয়ে দিলেন তিনি। খবর সিএনএনের।

করোনাভাইরাস মহামারি পরিস্থিতি ও লকডাউনের কারণে তাদের বিয়ের তারিখ বাতিল করতে হয় দু’বার। পরিস্থিতি খানিকটা স্বাভাবিক হওয়ার পরে, তৃতীয় বারের জন্য বিয়ের তারিখ ঠিক করে ফ্রেডেরিকসেন ভেবেছিলেন, এবার বিয়েটা সম্ভব হবে শেষমেশ। কিন্তু হঠাৎই সামনে চলে আসে ইইউ সামিট। ফলে এবারও বিয়ে পেছাতে হল তাকে।

আরো পড়ুন

ফেসবুকে নিজের প্রেমিকের সঙ্গে একটি ছবি দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী ফ্রেডেরিকসেন এবং লিখেছেন, ‘আমি এই সেরা মানুষটিকে বিয়ে করার জন্য সত্যিই উদগ্রীব। কিন্তু তা কিছুতেই সহজে হচ্ছে না। এবার একটা বড় মিটিং চলে এল সামনে। জুলাই মাসের ঠিক যে শনিবারটিতে আমাদের বিয়ের তারিখ ছিল, ওইদিনই ব্রাসেলসে ইইউ মিটিং হবে। দেশের জন্য আমাকে সেই সম্মেলনে যেতে হবে। তাই আমি আবার পরিকল্পনা বদল করলাম।

মেট আরো লিখেছেন, ‘আমরা নিশ্চয় খুব তাড়াকাড়ি বিয়ে করতে পারব। এত দিন ধরে ধৈর্য্য ধরে রাখা মানুষটির পাশে থাকব।

জুলাই মাসের ১৭-১৮ তারিখে ইউরোপীয় কাউন্সিলের ওই গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকের দিন ধার্য হয়েছে। গত সপ্তাহেই ঠিক হয়েছে তারিখ। লকডাউনের পরে এই প্রথম জরুরি বৈঠকে বসছে ইইউর ২৭ দেশ। কভিড সংকটে দেশগুলোর অর্থনৈতিক ক্ষতি ও তা কী করে সামাল দেয়া যায় – এ নিয়ে আলোচনা হবে এই বৈঠকে। ঠিক করা হবে আগামীর পরিকল্পনা। তাই স্বাভাবিকভাবেই দেশের স্বার্থে নিজের বিয়ে আরেকবার পেছালেন ডেনিশ প্রধানমন্ত্রী। মাত্র ৪১ বছর বয়সে গত বছর দেশের সবচেয়ে কম বয়সী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে ক্ষমতায় আসেন মেট।

আন্তর্জাতিক
২৬ জুন ২০২০