কালিয়ায় সংঘর্ষে পুলিশ আহতের ঘটনায় মামলা, আটক ৮

উপজেলা প্রতিনিধি | প্রকাশিত : ৩০ এপ্রিল ২০২০ , ২:১৩ অপরাহ্ণ

কালিয়া প্রতিনিধিঃ নড়াইলের কালিয়ায় দু’দল গ্রামবাসির মধ্যে দুই দফা সংঘর্ষের সময় পুলিশ কনেষ্টবল আহতের ঘটনায় শতাধিক গ্রামবাসির বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছে কালিয়া থানা পুলিশ। বুধবার রাতে ওই থানার এস আই মো. জাহিদুল ইসলাম বাদি হয়ে কালিয়া থানায় মামলাটি দায়ের করেছন। ওই ঘটনায় ৮ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

বুধবার সকালে উপজেলার জোকা গ্রামে সংঘর্ষ ঠেকাতে গিয়ে আতিকুর রহমান নামে একজন পুলিশ কনেষ্টবল দুবৃত্তদের ছোড়া অস্ত্রের আঘাতে আহত হন। গ্রামবাসির বিরুদ্ধে মামলা দায়েরের ঘটনাটি জানাজানি হলে রাতেই গ্রামটি পুরুষ শূন্য হয়ে পড়েছে। ঘটনাস্থলে পুলিশ টহল জোরদার করা হয়েছে।

অভিযোগের বিবরনে জানা যায়, উপজেলার ওই গ্রামের আব্দুল হাই শেখের এক খন্ড জমি এই গ্রামের কায়েম শরীফের কাছে বিক্রি করাকে কেন্দ্র করে হাই শেখ ও কায়েমের মধ্যে বিরোধ সৃষ্টি হয়। এর জের ধরে গত ২৭ এপ্রিল মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে কায়েম শরীফের নেতৃত্বে ৫০/৬০ জনের একদল স্বশস্ত্র লোক হাই শেখের স্বজনদের বাড়ি বাড়ি পর্যায় ক্রমে হামলা চালায়। ওই হামলার জের ধরে বুধবার সকাল ৯ টার দিকে বিবাদমান ওই দু’টি গ্রæপ আবার সংঘর্ষে লিপ্ত হয়। এতে পুলিশসহ প্রায় ১৫ জন আহত হয়।

আরো খবর:

ঘটনার খবর পেয়ে কালিয়া থানার একদল পুলিশ ঘটনাস্থলে আসলে প্রতিপক্ষের দিকে ছোড়া অস্ত্রের আঘাতে কনেষ্টবল আতিকুর রহমান আহত হয়। পুলিশ সদস্য আহতের ঘটনায় এস আই জাহিদুল ইসলাম বাদি হয়ে ওই রাতে ৬৪ জনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতনামা ৫০/৬০ জনের নামে মামলাটি দায়ের করেছেন। মামলার আসামী সরোয়ার শেখ (৫০), সিরাজ গাজী (৩৩), আজাদ খান (৫৫), বাদশা খান (৫৮), আজিজ কাজী (৩৪), দিন ইসলাম মোল্যা (৩৩), জুয়েল শেখকে (২৬) গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার পর থেকে গ্রেফতার এড়াতে গ্রামটি পুরুষ শুণ্য হয়ে পড়েছে।

কালিয়া থানার ওসি মো. রফিকুল ইসলাম বলেছেন, সংঘর্ষ থামাতে গিয়ে পুলিশ সদস্য আহতের ঘটনায় একটি মামলা দায়ের হয়েছে। মামলার ৮ আসামী গ্রেফতার করে আদালতে প্রেরন করা হয়েছে। বাকি আসামী গ্রেফতার করতে পুলিশী অভিযান অব্যাহত রয়েছে।

দেশজুড়ে
৩০ এপ্রিল ২০২০