কালিয়ায় আ’লীগ নেতা হত্যা মামলার প্রধান আসামী চেয়ারম্যান কায়েস গ্রেফতার

উপজেলা প্রতিনিধি | প্রকাশিত : ০৫ জুন ২০২০ , ২:০৯ অপরাহ্ণ

কালিয়া, নড়াইল || নড়াইলের কালিয়ার চাঞ্চল্যকর আওয়ামী লীগ নেতা ও ইউপি সদস্য আব্দুল কাইউম শিকদার (৪৫) হত্যা মামলার প্রধান আসামী উপজেলার কলাবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান মাহামুদুল হাসান কায়েসকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

বৃহস্পতিবার বিকালে র‌্যাব ৬ এর একটি দল যশোর শহরের তার ভাড়া বাসা থেকে গ্রেফতার করেছে বলে নিশ্চিত করেছ উপজেলার নড়াগাতি থানা পুলিশ। শুক্রবার সকালে তাকে নড়াগাতি থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করেছে র‌্যাব। চেয়ারম্যান কায়েসের বিরুদ্ধে ৭ টি মামলাসহ বহু অভিযোগ রয়েছে বলে পুলিশ ও স্থানীয়রা জানিয়েছেন।

পুলিশ জানায়, কলাবাড়িয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান কায়েস ও বাংলাদেশ জাতীয় কাবাডি দলের সাবেক সদস্য, উপজেলার কলাবাড়িয়া ইউনিয়নের ৩ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ও ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক আব্দুল কাইউম শিকদারের মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলছিলো। গত ২৬ মে রাত সাড়ে ৮ টার দিকে কাইউম শিকদার ও উপজেলার নড়াগাতি থানা কৃষক লীগের সভাপতি মোল্যা আবুল হাসনাতসহ ৪ জন নেতাকর্মী ২টি মটরসাইকেল যোগে কালিয়া থেকে কলাবাড়িয়া গ্রামে ফেরার পথে স্বশস্ত্র সন্ত্রাসীরা ওই সড়কের কালিনগর নামক স্থানে বাঁশ দিয়ে সড়ক আটকে মটর সাইকেল থেকে ফেলে কাইউম শিকদার, হাসনাত মোল্যা (৩৮), সজিব মল্লিক (২৫) ও মতিয়ার মল্লিককে (৪০) হাত ও পায়ের রগ কেটে ফেলাসহ কুপিয়ে আহত করে এবং আহতদেরকে কালিয়া হাসপাতালে নেয়া হলে কাইউম শিকদারকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষনা করেন। ওই ঘটনায় নিহতের ছেলে নাইমুল ইসলাম মিল্টন বাদি হয়ে চেয়ারম্যান মাহামুদুল হাসান কায়েসসহ ৪৫ জনের নাম উল্লেখ করে ও অজ্ঞাতনামা ১০/১৫ জনকে আসামী করে নড়াগাতি থানায় মামলা দায়ের করেন।

Read More:

নড়াগাতি থানার ওসি রোকসানা খাতুন বলেছেন, র‌্যাব ৬ এব হাতে গ্রেফতার হওয়া কাইউম হত্যা মামলার প্রধান আসামী মাহামুদুল হাসান কায়েসকে শুক্রবার সকালে থানায় হস্তান্তর করার পর রিমান্ডের আবেদনসহ নড়াইল আদালতে প্রেরন করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, এর আগে গত ৩ বছরে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ইউনিয়নটিতে আরও ৪ জন আওয়ামী লীগ ও যুবলীগ নেতাকর্মী নৃশংশ ভাবে খুন হয়েছে।

দেশজুড়ে
৫ জুন ২০২০