কালিয়ায় আ’লীগ নেতা হত্যার ১০ দিনেও গ্রেফতার হয়নি কোনো আসামী

উপজেলা প্রতিনিধি | প্রকাশিত : ০৪ জুন ২০২০ , ১:০৪ অপরাহ্ণ

কালিয়া, নড়াইল || নড়াইলের কালিয়ায় আওয়ামী লীগ নেতা, জাতীয় কাবাডি দলের সাবেক সদস্য ও কলাবাড়িয়া ইউপি সদস্য আব্দুল কাইউম শিকদাকে (৪৫) কুপিয়ে খুনের ঘটনার দশ দিন অতিবাহিত হলেও মামলার কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। যে কারনে এলাকা জুড়ে এক অজানা আতংক বিরাজ করছে বলে স্থানীয় একাধিক সুত্র দাবি করেছে।

মামলার বিবারণে জানা যায়, কালিয়া উপজেলার কলাবাড়িয়া ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারন সম্পাদক ও বাংলাদেশ জাতীয় কাবাডি দলের সাবেক সদস্য আব্দুল কাইউম শিকদার গত ২৬মে রাত সাড়ে ৮ টার দিকে কালিয়া থেকে নিজ গ্রামের বাড়ি উপজেলার বিলাফর গ্রামে ফেরার পথে কালিয়া-গোপালগঞ্জ সড়কের কালিনগর নামকস্থানে বাঁশ দিয়ে সড়ক আটকে প্রতিপক্ষের লোকজন কাইউম শিকদার ও তার সংগী উপজেলার নড়াগাতি থানা কৃষক লীগের সভাপতি আবুল হাসনাত মোল্যাসহ ৪ জনকে কুপিয়ে আহত করে পালিয়ে যায়।

তাদেরকে কালিয়া হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক কাইউম শিকদারকে মৃত ঘোষনা করেন।

ওই ঘটনায় নিহতের ছেলে নাইমুল ইসলাম মিল্টন বাদি হয়ে উপজেলার নড়াগাতি থানায় কলাবাড়িয়া ইউপির চেয়ারম্যান মাহামুদুল হাসান কায়েসসহ ৪৫ জনের নাম দিয়ে ও অজ্ঞাত নামা ১০/১৫ জনকে আসামী করে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন। কিন্তু ওই থানা পুলিশ গত ১০ দিনেও ওই নৃশংস হত্যাকান্ডের ঘটনায় কোন আসামীকে গ্রেফতার করতে পারেনি।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক একাধিক সুত্র অভিযোগ করে বলেছেন, কাইউম হত্যা মামলার আসামীরা গ্রেফতার না হওয়ায় নিহতের স্বজন ও সমর্থকরা পরবর্তী অজানা আতংকে দিন কাটাচ্ছে। এলাকাবাসি ও বাদির পরিবারসহ মামলার স্বাক্ষীরা অবিলম্বে খুনিদের গ্রেতারের দাবি জানিয়েছেন।

উপজেলার নড়াগাতি থানার পরিদর্শক তদন্ত ও মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা মো. রুহুল আমিন বেলছেন, আসামী গ্রেফতার পুলিশের অভিযান অব্যাহত আছে। খুব তাড়াতাড়ি খুনিদের গ্রেফতার করা সম্ভব হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেছেন।

দেশজুড়ে
৪ জুন ২০২০